Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (গ্রীষ্মকাল)

তীব্র গরমে অসুস্থতা ও করণীয়

অস্বভাবিক গরম স্বাভাবিক জীবনে ফেলছে বিরুপ প্রভাব ।অতিরিক্ত গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছে জনজীবন।অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই।ডায়রিয়ার প্রকোপ,জীবানু সংক্রমন,এলার্জি সমস্যা ইত্যাদিসহ অত্যধিক তাপজনিত অসুস্থতায় হাঁপিয়ে ওঠছে জনসাধারণ।

অত্যধিক গরমজনিত অসুস্থতা মূলত দুই ভাগে বিভক্ত –
১। Non-Exertional Heat Illness:
যখন পরিবেশের তাপমাত্রা বেশী থাকে।এক্ষেত্রে বৃদ্ধ,শিশু,জীবনঘাতি রোগাক্রান্ত ব্যাক্তি,অ্যালকোহলে পান,হার্ট ফেইলর বা অন্য কোন কারণে ডাইরেটিক জাতীয় ঔষধ সেবনকারীরা বেশী ঝুঁকিপূর্ণ।

২।Exertional Heat Illness-
যখন শরীরের তাপ উৎপাদন লসের তুলনায় বেশী হয়।যেমন এথলেটদের ক্ষেত্রে।

Heat Cramps ও Heat Syncope বলতে কি বুঝি?
Heat Cramps :
• প্রচন্ড গরমে শরীর বা মাংসপেশীতে তীব্র ব্যাথা হয়।একে Heat Cramps বলে।

• অতিরিক্ত গরম আবহাওয়ায়/পরিবেশে অত্যধিক ব্যায়াম এবং ফলশ্রুতিতে প্রচুর ঘামালে Heat Cramps এর সমস্যা তীব্র হয়। এক্ষেত্রে লবন ছাড়া শুধু পানি পান করলে অসুস্থতা আরো বেড়ে যেতে পারে।

• নরমাল পানির পরিবর্তে খাওয়ার স্যালাইনযুক্ত পানি পান করা বা চিকীৎসকের পরামর্শে শিরায় স্যালাইন দিলে এ জাতীয় সমস্যা প্রশমিত হয়।

Heat Syncope :
অত্যধিক গরমে পেরিফেরাল রক্তনালীসমূহের প্রসারণের কারনে ব্রেইনের রক্ত সঞ্চালণ সাময়িকভাবে কমে যায় এবং রোগী মূর্ছাপ্রবণ হয়ে পড়ে ।একে Heat Syncope বলে।

Heat Exhaustion কি?

•এক্ষেত্রে শরীরের তাপমাত্রা ৩৭-৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস বা ৯৮.৬-১০৪ ডিগ্রী ফারেনহাইট পর্যন্ত আসতে পারে।

•বেশী সময় ধরে অতিরিক্ত গরম পরিবেশে অবস্থানের
•প্রচুর ঘামানো
•অপর্যাপ্ত লবনযুক্ত পানি পান করা
ইত্যাদি কারনে Heat Exhaustion হয়ে থাকে।

• ব্লাড এনালাইসিস করলে হিমাটোক্রিট,ইউরিয়া,সোডিয়াম ইত্যাদি বাড়বে এবং প্লাজমা ভলিউম কমবে।

• দ্রুত চিকীৎসা না নিলে Heat Stroke এ টার্ণ করতে পারে।

Heat Stroke এর উপসর্গসমূহ কি কি?
•Heat Stroke একটি জীবনঘাতি পরিস্থিতি ।এক্ষেত্রে রোগীর শরীরের তাপমাত্রা ৪০ডিগ্রী সেলসিয়াস বা ১০৪ ডিগ্রী ফারেনহাইট বা তার বেশী হয়।

• উপসর্গসমূহ-
মাথাব্যাথা
বমিভাব বা বমি
মাংসপেশীর কম্পন
কনফিউশান
আক্রমনাত্মক হওয়া
অজ্ঞান হয়ে যাওয়া
শরীর শুকনো বা ঘামহীন হয়ে পড়া

জটিলতা,যেমন -হাইপোভলেমিক শক,কিডনী ফেইলর,লিভার ফেইলর,ডিআইসি,ল্যাকটিক অ্যাসিডোসিস,রেবডোমায়োলাইসিস,ফুসফুস ও ব্রেইনে পানি জমা (Oedema)।

করণীয়ঃ
১। অতিরিক্ত গরমে জরুরী প্রয়োজন ব্যাতীত বাইরে বের না হওয়া।একান্তই বের হলে ছাতা,সানগ্লাস ব্যাবহার করা।
২।প্রচুর পানি,বিশেষ করে লবনযুক্ত পানি  যেমন খাওয়ার স্যালাইন, ডাবের পানি,লেবুর সরবত ইত্যাদি পান করা।
৩।অত্যধিক কায়িক পরিশ্রম পরিহার করা।
৪।প্রচন্ড গরমে অতিরিক্ত ব্যায়াম না করা।
৫। ব্যায়ামের সময় অবশ্যই লবনযুক্ত পানি বেশী পান করা।
৬।ধুমপান ও অ্যালকোহল পরিহার করা।
৭।অতিরিক্ত চা,কফি পান করা থেকে বিরত থাকা।
৮।পাতলা ও আরামদায়ক সুতি কাপড় পরিধান করা।
৯।Heat Exhaustion এবং Heat Stroke সন্দেহ হলে দ্রুত সমগ্র শরীর ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে দেয়া,আইস প্যাক ব্যাবহার করা এবং সম্ভব হলে শিরায় স্যালাইন দিয়ে জরুরী ভিত্তিতে হাসপাতালে প্রেরণ করা।
১০।শিশু,বৃদ্ধ ও গর্ভবতীদের প্রতি বিশেষ যত্নবান হওয়া।
১১।দৈনিক কয়েকবার ঠান্ডা পানিতে গোসল করা।

ডাঃ এ. এন. এম. মাজহারুল ইসলাম (রুবেল)
এমবিবিএস,এফসিপিএস(মেডিসিন)
মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
কার্ডিওলজী বিভাগ
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল,ঢাকা।

প্রিয় পোষ্ট সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন


আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন
মাইগ্রেন ও টেনশন মাথা ব্যাথা- উপসর্গ ও করণীয়
দেশে ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত
ক্যানসারের টিকা তৈরির দ্বারপ্রান্তে রাশিয়া : পুতিন
দিনে ঘুমাচ্ছেন? জেনে নিন উপকার নাকি ক্ষতি
দেশে তৈরী হচ্ছে ডেঙ্গুর টেষ্ট কিট
শিশু আয়ানের মৃত্যুর তদন্ত রিপোর্ট লোক দেখানো : হাইকোর্ট

স্বাস্থ্য চিকিৎসা এর আরও খবর

সম্পাদক: অধ্যাপক মোঃ শাহাদাত হোসেন, প্রধান সম্পাদক: জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়, প্রকাশক: আবু সাঈদ ইকবাল মাসুদ সোহেল, মিডিয়া ভিশন লন্ডন থেকে প্রকাশিত।   ঢাকা কার্যালয় (অস্থায়ী): শহীদ ভিলা, বাসা- ২৫, কাঠালবাগান, গ্রীনরোড, ঢাকা-১২০৫